ওষুধ ছাড়াই কাশি কমান

3

ফুসফুসের সমস্যা, অ্যালার্জি, অ্যাজমা, এসিড সমস্যা, শুষ্ক আবহাওয়া, ধূমপান, এমনকি কিছু ওষুধ সেবনের ফলেও কাশি হতে পারে। তবে কাশি যদি হালকা ও স্বল্পস্থায়ী হয় তাহলে আপনি ঘরোয়া উপায়েই তা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করতে পারবেন।

জেনে নিন কোন খাবার খেলে বা কি করলে কাশি কমে যাবে-

হলুদ
হলুদ বেশ কার্যকরভাবে কাশি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এক গ্লাস গরম দুধের মধ্যে আধা চা চামচ হলুদের গুঁড়া এবং এক চা চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এটি দ্রুত কাশি কমাতে সাহায্য করে।

আদা-লেবুর শরবত
কাশি কমাতে লেবুর হালকা শরবতের মধ্যে আদা কুচি মিশিয়ে খেতে পারেন। আদা শ্লেষ্মা দূর করতে সাহায্য করে। এর মধ্যে এক চা চামচ মধুও মেশাতে পারেন।

গার্গল করা
হালকা গরম পানিতে গার্গল করলে গলাব্যথা কমে। এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে আধা চা চামচ লবণ মিশিয়ে ১৫ মিনিট ধরে গার্গল করুন। এভাবে বিরতি দিয়ে কয়েকবার করুন। এটি কাশি কমাতে বেশ কার্যকর ঘরোয়া পদ্ধতি।

মধু খান
মধু কাশি কমাতে সাহায্য করে। মধু কখনো কখনো কাশিরোধী ওষুধগুলোর চেয়েও ভালো কাজ করে এবং গলাব্যথাও কমায়। মধু শ্লেষ্মা কমাতে সাহায্য করে। কাশি কমাতে এক কাপ লেবুমিশ্রিত চায়ের মধ্যে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। তবে এক বছরের নিচের শিশুদের মধু খাওয়াবেন না।

শক্ত ক্যান্ডি
এক পিস ক্যান্ডি খেয়ে দেখতে পারেন। ক্যান্ডি শক্ত কফ নরম করে দিতে সাহায্য করে এবং কাশি কমায়। খুশখুশে কাশিতে এটি বেশ কার্যকর।