ডিইউজে জনকল্যাণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান সমীরণ রায়

351

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নে (ডিইউজে) নির্বাচন ২০১৮-এ জনকল্যাণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান সাংবাদিকদের রুটি-রুজির আন্দোলনে রাজপথে নির্ভীক সৈনিক ও দৈনিক আমার দিনের স্টাফ রিপোর্টার সমীরণ রায়।

ডিইউজে নির্বাচন করবেন কিনা এ সম্পর্কে জানতে চাইলে সমীরণ রায় বলেন, সাংবাদিকতার পাশাপাশি সাংবাদিকদের বৃহত্তর সংগঠন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)-এর মতো ট্রেড ইউনিয়ন রাজনীতিকে তিনি ধ্যান-জ্ঞাণ হিসেবে মনে করেন। তিনি সাংবাদিকদের বিপদে-আপদে ও রুটি-রুজির আন্দোলনে পাশে থাকতে চান। এর মধ্যে দিয়েই তিনি দেশের চতুর্থ স্তম্ভ সংবাদপত্রকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে চান। তাই তিনি ডিইউজে নির্বাচন-২০১৮-এ জনকল্যাণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান।

তিনি বলেন, সাংবাদিকরা দেশের প্রথম শ্রেণীর মানুষ। সমাজের আয়না। সাংবাদিকরাই দেশের যে কোনো সংঙ্কটে পাশে দাড়ান। কিন্তু সাংবাদিকদের জীবনমানের কোনো পরিবর্তন হয় না। সাংবাদিকদের এসব সঙ্কট নিয়ে কথা বলার জন্যই মূলত ডিইউজে নির্বাচনটা করতে চান। এতে যেমন রাজপথে সাংবাদিকদের দুঃখ দুর্দশা নিয়ে কথা বলা যাবে। পাশাপাশি প্রবীণ-নবীন সব সাংবাদিকদের জীবনমান উন্নয়ন করা যাবে বলেও মনে করেন সমীরণ।

সমীরণ রায়ের সংক্ষিপ্ত পরিচয়
ছোট খাট একটি মানুষ। সদা হাস্যময়ী। গায়ের রং শ্যামলা। সারাদিন সংবাদের পেছনে ছুটে বেড়ানো ছাড়া আর কোনো কাজ নেই তাঁর। কখন কোথায় কি ঘটছে। কে কি বলছেন, তাই নিয়ে সারাক্ষণ পর্যালোচনা করা। এই মানুষটি আর কেউ নয় তিনি হলেন সাংবাদিক সমীরণ রায়। তিনি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার তারাকান্দর গ্রামে ১৯৮৪ সালের ৫ আগস্ট জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি কোটালীপাড়ার পিঞ্জুরী ইউনিয়ন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করেন। পিঞ্জুরী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পাস করেন। তিনি রামশীল ইউনিয়ন মহাবিদ্যালয় থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। ঢাকা সোহরাওয়ার্দী সরকারি কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক এবং ঢাকা কলেজ থেকে স্নাতকত্তোর ডিগ্রি লাভ করেন।

অধ্যায়নরত সময় থেকেই তিনি সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত হন। এ পর্যন্ত তিনি দেশের বিভিন্ন বড় বড় জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন গণমাধ্যমে সুনামের সঙ্গে কাজ করে আসছেন। এ সব গণমাধ্যমের মধ্যে রয়েছে দৈনিক বাংলাদেশ সময়, দৈনিক সকালের খবর, দৈনিক আমার দেশ, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলামেইল২৪ডটকম, অর্থসূচক, দৈনিক যায়যায় দিন। বর্তমানে দৈনিক আমার দিনে স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। একজন সৎ, নির্ভীক সাংবাদিক হিসেবে গণমাধ্যম অঙ্গনে বেশ সুনামও রয়েছে তাঁর।