সেলফিতে ত্বকের ক্ষতি, চিকিৎসকদের সতর্কবার্তা

3

যুগটা সেলফির! ‘সেলফি’ তুলতে ভালবাসেন? যখনই ইচ্ছা হয় একা বা প্রিয়জনদের সঙ্গে সেলফি তোলেন? সময় থাকতে সতর্ক হয়ে যান। না হলে স্মার্টফোনের আলো এবং বিকিরণের ফলে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে, চামড়া কুঁচকে গিয়ে বিশ্রী চেহারা নিতে পারে। অকাল বার্ধক্যেরও কারণ হতে পারে এই অভ্যাস। এমনটাই বলছেন ব্রিটেনের চিকিৎসকরা।

একটি চর্মরোগ চিকিৎসা কেন্দ্রের মেডিক্যাল ডিরেক্টর সাইমন জোয়াকেই বলছেন, মানুষের মুখ দেখেই চিকিৎসকরা বলে দিতে পারেন, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি কোন হাতে ফোন ধরে থাকেন এবং কোন কানে ফোন ধরে কথা বলেন। কারণ, সেই দিকের ত্বকে এর প্রভাব পড়ে। ফোন থেকে যে নীল আলো অনবরত বিচ্ছুরিত হয়, তার ফলেও চামড়ার ক্ষতি হয়। আর ক্রমাগত সেলফি তুললে তো কথাই নেই।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ জিন ওবাগি বলেছেন, মোবাইল ফোনের তড়িৎচুম্বকীয় বিকিরণের ফলে ডিএনএ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর ফলে ত্বক ক্রমশঃ কুঁচকে যেতে থাকে। মুখের একদিক বিশ্রী দেখতে লাগে।

মোবাইলের এই ক্ষতিকর প্রভাব দূর করার জন্য প্রতিরোধক ব্যবস্থা গড়ে তোলার চেষ্টা করছেন চিকিৎসকরা। তবে যতদিন না সেই ব্যবস্থা হচ্ছে, ততদিন সেলফি একটু কম তুললেই ভাল হয়। তাতে ত্বক কিছুটা হলেও রক্ষা পাবে।