ঈদ-উল-আজহায় বর্ণিল লা রিভ

229

আসছে মুসলমানদের অন্যতম বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদ-উল-আজহা। চলছে উৎসব উদযাপনের প্রস্তুতি। উৎসব মানেই খাবার, ঘোরা আর সাজ-পোশাকের বাহার। কোরবানির ঈদে সবকিছু ছাপিয়ে পোশাকের গুরুত্ব থাকে একটু বেশিই।

আর আসছে উৎসবকে সামনে রেখে লা রিভ এনেছে আকর্ষণীয় ও নজরকাড়া সব নতুন পোশাক। নানা রঙ ও ডিজাইনের পোশাকগুলো বরাবরের মতোই বৈচিত্র্যময় অলংকরণে সমৃদ্ধ।

এবারের ঈদ উদযাপিত হবে বৃষ্টিময় স্যাঁতসেঁতে ও গরম আবহাওয়ায়। এ সময় পোশাক ব্যবহারে আরামের কথা বিবেচনা করে বেছে নেওয়া হয়েছে সুতি কাপড়, সিল্ক, মসলিন, এন্ডি সিল্ক, জয়শ্রি, এন্ডি কটন, জর্জেট, শিফনসহ অন্যান্য আরামদায়ক কাপড়। কারচুপি, এম্ব্রয়ডারি, স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লক, স্টিচিংসহ কারুকাজে এসব পোশাক উৎসবে আপনাকে করবে অন্য সবার চেয়ে আলাদা।

পোশাকগুলোর রঙ নির্বাচনে উজ্জ্বল আর বৈচিত্রময় রঙকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। ঈদ পোশাকে আধুনিক ধারার শিল্পরীতি ফুটিয়ে তুলতে আকর্ষণীয় সব রঙের পাশাপাশি যোগ করা হয়েছে ফুলেল নকশা, লেইস, মসৃণ ফেব্রিক ও ভেলভেট।

ঈদে মেয়েদের পোশাক সালোয়ার কামিজে লা রিভ নিয়ে এসেছে ভিন্নতা। সালোয়ার কামিজে ফ্রক স্টাইল, এ লাইন এবং রেগুলার শেপের প্রাধান্য রয়েছে। লাল, কমলা, ম্যাজেন্টা, বেগুনী, রয়্যাল ব্লু’র মতো উজ্জ্বল রঙ তো আছেই। পাশাপাশি ঈদ মৌসুমে বৃষ্টি এবং গরমের কথা মাথায় রেখে হালকা আকাশী, গোলাপী, লেমন, হালকা হলুদ, সবুজ এবং সাদা রঙের ব্যবহার করা হয়েছে বেশিরভাগ পোশাকে।

কামিজ ও চুড়িদারে বিভিন্ন শেড করা হয়েছে ডেলিকেট এবং ভেজিটেবল ডাই এর মাধ্যমে। এছাড়া ব্যবহার করা হয়েছে ঐতিহ্যবাহী চুন্দ্রি ও টাই ডাই। সঙ্গে রয়েছে জারদৌসী হাতের কাজ, রাজস্থানী এমব্রয়ডারী ইত্যাদি। প্রধানত লিলেন, সুতি, মসলিন, জর্জেট, জামদানী কটনও ব্যবহার করা হয়েছে মেয়েদের পোশাকে। টিউনিকে বাটারফ্লাই স্টাইল, কাপ্তান স্টাইল ব্যবহার হয়েছে। লাল, হলুদ, কালো, ম্যাজেন্টা, স্কাই ব্লু, পেস্ট ইত্যাদি রঙের সূতী লিলেন, জর্জেট ও ল্যাকনা কাপড় ব্যবহার হয়েছে টিউনিক ও টপসে।

ছেলেদের ঈদের পাঞ্জাবীতে রয়েছে শর্ট, সেমি লং এবং ঐতিহ্যবাহী পাঞ্জাবির প্যাটার্ন। স্বতন্ত্রতা আনার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে সেলাইয়ের বিভিন্ন ডিজাইন। পাঞ্জাবীর রঙের ক্ষেত্রে লাল, কফি, বেগুনী, কমলা, জলপাই সবুজের মতো উজ্জ্বল এবং চকচকে রং এর পাশাপাশি রয়েছে হালকা আকাশী, সাদা, অফ হোয়াইট, বেবী পিঙ্ক, ধুসর ইত্যাদি রঙের সমাহার। কমলা, নীল, সাদা, কফি, কালো রঙের টিশার্ট পাবেন লা রিভে। বিভিন্ন প্রিন্ট এবং এম্ব্রয়ডারীর ব্যবহার টি শার্টগুলোকে করেছে অনন্য। ক্যাজুয়াল শার্টেও ব্যবহার করা হয়েছে বিভিন্ন রঙের শেড। সঙ্গে আছে ওয়াশের ভিন্নতা নিয়ে বিভিন্ন রঙের ফিটেড ডেনিম প্যান্ট এবং নীল, ইট রং এবং খাকী রঙের ফিটেড টুইল প্যান্ট।

শিশুদের জন্য রয়েছে কিডস কর্ণার। যেখানে রয়েছে চমৎকার সব স্টাইলিশ পোশাকের সমাহার। ২ থেকে ১২ বছরের ছেলে মেয়ের জন্য রয়েছে শার্ট, প্যান্ট, টি শার্ট, পাঞ্জাবি, জিন্স, ফ্রকসহ অন্যান্য সব পোশাক।

লা-রিভের হেড অফ ডিজাইন মুন্নুজান নার্গিস বলেন, আসছে উৎসবে ছেলে এবং মেয়েদের পোশাকে উজ্জ্বল রঙের প্রাধান্য রয়েছে, সঙ্গে রয়েছে ইস্টার্ন এবং ওয়েস্টার্ন কাটের এবং ডিজাইনের সংমিশ্রন।

বনশ্রী, ধানমন্ডি, মিরপুর-১, উত্তরা, ওয়ারী, বেইলি রোড, যমুনা ফিউচার পার্ক, পুলিশ প্লাজা কনকর্ড ও বসুন্ধরা সিটিসহ নারায়ণগঞ্জ এবং সিলেট শোরুমগুলোতে পাওয়া যাবে এসব পোশাক। এছাড়া প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারিতে অর্ডার করতে পারবেন। অনলাইনে লা-রিভ পণ্য কিনতে ভিজিট করুন-www.lerevecraze.com