সকালের ৪ ভুল ধ্বংস করবে সারাদিন !

184

রাতে ভালো ঘুম হলেও পরের দিনটি খুবই খারাপ যায় অনেকেরই। সমস্যাটা কোথায় তা বুঝে উঠতে পারি না অনেকেই। আসলে পর্যাপ্ত ঘুমের পাশাপাশি ঘুম থেকে ওঠার পর কিছু অভ্যাস গড়ে তুললেই এ থেকে উত্তরণ করা সম্ভব।

morning

ঘুম থেকে ওঠার পর ভোরের আলো গায়ে মাখা দরকার
যদি ঘুম থেকে উঠেই দ্রুত গোসল করে, কফি খেয়ে অফিসে ছুটে যান তাহলে দুপুরের খাবার খাওয়ার আগে আপনার সূর্য দেখার সম্ভাবনা একেবারেই নেই বলা চলে। নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ভোরবেলার মিষ্টি রোদের সস্পর্শে না আসলে তা শরীরের বিএমআই (বডি মাস ইনডেক্স) নিয়ে সমস্যা সৃষ্টি করে। বিএমআই হচ্ছে শরীরের উচ্চতা ও ওজনের একটি অনুপাত। এই অনুপাত নষ্ট হলে একজন মানুষ বেশি চিকন বা স্থূলকায় হয়ে যায়। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্যে সকালে ঘুম থেকে উঠে অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট সূর্যের আলোর আশেপাশে থাকা উচিত। খুব বেশি তাড়া থাকলে জানালার পর্দা সরিয়ে দিন। আপনি অফিসের জন্যে প্রস্তুত হতে হতেই পর্যাপ্ত সূর্যালোকের স্পর্শ পাবে আপনার শরীর। সকালের নাস্তাটি বাইরে করুন। অথবা বাসায় হলে জানালার পাশে বসে সকালের খাবারের পর্বটা সেরে নিন।

water

সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি পান করুন
সকালে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান না করলে সারাদিন আপনার শরীর পানিস্বল্পতায় ভুগবে। ফ্রান্সে হওয়া এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে সকালে পানি পান না করলে সারাদিন আপনার মেজাজ খারাপ থাকবে, বিভ্রান্তিতে ভুগবেন এবং সারাদিন প্রচুর ক্লান্তি কাজ করবে। সকালে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে কেবলমাত্র খুশি ও সক্রিয় অনুভব করবেন যে তাই না, পুরো দিনজুড়ে বেশি শক্তি অনুভব করবেন। কাজে ভালো গতি থাকবে এবং মনোবল শক্ত হবে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রতিদিন ঘুম থেকে ওঠার পর প্রথম ঘণ্টায় ২৪ আউন্স বা প্রায় ৩ কাপ পানি পান করা উচিত।

খালি পেটে ব্যায়াম
সকালে খালি পেটে দৌড়াতে গেলে বা কোনোপ্রকার ব্যায়াম করলে পুরো দিনের জন্যে ক্লান্তি ভর করবে। ব্রিটেনে সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যেসকল পুরুষ সকালে ব্যায়াম করতে যাবার আগে সকালের খাবার খেয়ে নিয়েছে তারা যারা ব্যায়াম করতে যাবার আগে খায় নি তাদের চেয়ে বেশি কর্মক্ষম ও সক্রিয় ছিলো। সকালে পুষ্টিকর খাবার না খেয়ে শরীর সারাদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে স্ট্যামিনা পায় না। বিশেষজ্ঞরা বলেন, সকালে স্বাস্থ্যকর খাবার খেলে সারাদিন মস্তিষ্ক সক্রিয় থাকে। তাই ঘুম থেকে উঠে যেকোনো প্রকারের পরিশ্রম করার আগে সকালের খাবার খেয়ে নিন। আপনার শরীর সকালে পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন পেলে পুরো দিন সক্রিয় থাকতে পারবেন।

অফিসে যাবার সময় জ্যামে পড়লে মাথা ঠাণ্ডা রাখুন
অফিসে যাবার সময় ট্রাফিক জ্যামে আটকা পড়লে মেজাজটা খারাপ হওয়া স্বাভাবিক। সুইডেনে এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, এতে করে শুধুমাত্র সকালেই না, পুরো দিন জুড়ে মেজাজ রগচটা হয়ে থাকে। গবেষণাটি ছিলো আপনি যাতায়াত করার সময় কী আপনাকে খুশি করে এবং কী দেখলে আপনি হতাশ হন তা নিয়ে। প্রতিদিনকার যাতায়াত ব্যবস্থা আপনার জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। আপনি অফিসে যাবার আগে এবং বাসায় ফেরার পর আপনার মেজাজ কেমন হবে তা নির্ধারণ করে দেয় এটি। গবেষকদের পরামর্শ আপনার ভ্রমণটিকে যতটা সম্ভব উপভোগ করার। চাইলে গান শুনতে পারেন। ঠাণ্ডা গান স্নায়ূকে শান্ত রাখতে বেশ সহায়ক।